BdNewsEveryDay.com
Sunday, July 22, 2018

চরফ্যাশনে ট্রাকচাপায় ২ জন নিহত

Thursday, June 21, 2018 - 752 hours ago

চরফ্যাশনে ট্রলিট্রাক কেড়ে নিল শিশুসহ ২ জনের প্রাণ। জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে আছে আরো ৮ জন। বৃৃহষ্পতিবার সকাল ৯টায় চরফ্যাশন-ভোলা সড়কের হেলিপ্যাড সংলগ্ন মোড়ে ট্রলিট্রাকের চাপায় ব্যাটারিচালিত অটোরিক্সার ১০ যাত্রীর জীবনে এই বিপর্যয় নেমে এসেছে। দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত ৮ জনকে চরফ্যাশন হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসক তাদের বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে। নিহত আলীগাঁও গ্রামের মাসুদের পুত্র সিয়াম (৯) এবং ওছমানগঞ্জের আব্দুর রহিম সিকদারের পুত্র মুনসুর আলী সিকদারকে(৪৫) বৃহস্পতিবার বিকেলেই নিজ নিজ গ্রামের বাড়িতে দাফন করা হয়েছে। দুর্ঘটনাকবলিত অটোরিক্সার অক্ষত ২ যাত্রী শিপন (১৬) ও হামিম (৮) জানায়, অটোরিক্সাটি কর্তারহাট থেকে চরফ্যাশন সদরে আসছিল। হেলিপ্যাড মোড়ে অটোরিক্সা-ট্রাক পরস্পরকে অতিক্রম করার সময়  ১২জন যাত্রীসহ অটোরিক্সাটির ডান সাইড দ্রুতগতির ট্রলিট্রাকের বডির নিচে চলে যায়। ঘটনাস্থলেই অটোর ২ যাত্রী শিশু সিয়াম এবং মুনসুর আলী সিকদার মারা যায়। বোরাকের সামনে বামপাশে বসা তারা দুই ভাই লাফিয়ে রাস্তার বাইরে পড়ে প্রাণে বেঁচে যান। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা হতাহতদের উদ্ধার করে চরফ্যাশন হাসপাতালে নিয়ে আসে। নিহত সিয়ামের বাবা গুরুতর আহত মাসুদ, মা সালমা, অটোরিক্সায় অন্য যাত্রী ইরানী, নুরহাজান, শারমিন, সেলিম, বায়জিদ এবং শাকিলকে বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। চরফ্যাশন হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. হিলারী ইয়াসমিন জানান আহত ৮ জনের প্রত্যেকের অবস্থা গুরুতর। নিহত সিয়ামের নিকটাত্মীয় শিপন জানায়, সিয়ামের মা সালমা বেগম অসুস্থ ছিলেন। তাকে চিকিৎসার জন্য চরফ্যাশন হাসপাতালে নেয়া হচ্ছিল। সঙ্গে ছিলেন স্বামী মাসুদ ও ছেলে সিয়াম। পথিমধ্যে দুর্ঘটনায় শিশু পুত্র সিয়াম মারা যায়। জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে আছেন বাবা মাসুদ আর মা সালমা বেগম। তাদের বরিশাল শেবাচিমে পাঠানো হয়েছে। দাফন করা হয়েছে সিয়ামকে। কিন্ত সিয়ামের মৃত্যুর খবর তার বাবা-মাকে জানানো হয়নি। ছেলের মৃত্যুর খবর শোনার মতো অবস্থাও তাদের নেই। তারা সংজ্ঞাহীন। চরফ্যাশন পৌরসভার মেয়র বাদল কৃষ্ণ দেবনাথ জানান, আহতদের প্রত্যেককে চিকিৎসার জন্য স্থানীয় সংসদ সদস্য পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন উপমন্ত্রী আবদুল্লা আল ইসলাম জ্যাকব তার ব্যাক্তিগত তহবিল থেকে তাৎক্ষণিক ১০হাজার টাকা করে অর্থ সহায়তা দিয়েছেন। পাশাপাশি উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিহতদের পরিবারকে ২৫ হাজার টাকা এবং আহতদের প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে চিকিৎসা সহায়তা প্রদান করা হয়েছে বলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ মনোয়ার হোসেন জানিয়েছেন। চরফ্যাশন থানার ওসি ম. এনামুল হক জানান, দুর্ঘটনার পর ঘাতক  ট্রাকসহ চালক পালিয়েছে। ঘাতক চালক ও ট্রাকটিকে সনাক্ত করার চেষ্টা চলছে। ইত্তেফাক/নূহু


bdnewseveryday.com © 2017 - 2018