BdNewsEveryDay.com
Wednesday, October 17, 2018

এতিমের সম্পদ আত্মসাৎ করলে প্রায়শ্চিত্ত করতে হয়: নওফেল

Wednesday, June 13, 2018 - 838 hours ago

চট্টগ্রাম: আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেন, ‘বেগম খালেদা জিয়া এতিমের সম্পদ আত্মসাৎ করাটা পাপ। পাপ করলে তার প্রায়শ্চিত্ত করতে হয়। এতিমখানার নাম দিয়ে কোটি কোটি টাকা অনুদান নিয়ে সেই টাকা পুত্রের ব্যাংক হিসাবে স্থানান্তর করে তিনি যে অন্যায় করেছেন সেজন্য আজকে তাকে শাস্তি পেতে হচ্ছে। পাপ বাপকেও ছাড়ে না।

বুধবার (১৩ জুন) নগরের ২৪ নম্বর উত্তর আগ্রাবাদ ওয়ার্ডে সমাজ সেবক, রাজনীতিবিদ ফরিদ মাহমুদের উদ্যোগে সমবেত নারী-পুরুষদের মাঝে ঈদ উপহার স্বরূপ শাড়ি, লুঙ্গি বিতরণকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেন, খালেদা জিয়া যদি জিয়া অরফানেজ চ্যারিটেবল ফান্ডের নামে বিদেশ থেকে টাকা এনে এদেশের কোথাও একটি এতিমখানা নির্মাণ করতেন এবং সেখানে দুঃস্থ ছাত্র-ছাত্রীদের লেখাপড়া এবং বাসস্থানের ব্যবস্থা করতেন আজকে তাকে অর্থ আত্মসাতের মামলায় আসামী হতে হতো না। পরের টাকায় বেগম জিয়া বিলাসী জীবন যাপন করেন। ওনি যদি অসুস্থ হয় চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী সরকারি ব্যবস্থাপনায় ওনার চিকিৎসাসেবা প্রদান করা হবে। কিন্তু তিনি তা করবেন না। বেসরকারি চিকিৎসা কেন্দ্রে বিলাসবহুল চিকিৎসা নেবেন। তার সাথে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার অনেক পার্থক্য। জননেত্রী শেখ হাসিনা সাধারণ জীবন যাপন করেন। পোষাক আশাকে খাদ্যাভাসে অত্যন্ত সাধারণ। পক্ষান্তরে বেগম জিয়া ওনার নির্ধারিত খাদ্য তালিকা, প্রসাধনী, গৃহ পরিচালিকা ছাড়া চলতে পারে না। ১/১১ এর সময়কালে কারান্তরীন দুই নেত্রীর মধ্যে সুযোগ সুবিধার বিষয়ে ব্যপক বৈষম্য ছিলো। জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি নিষ্ঠুর আচরণ করা হয়েছিলো।

সভার শুরুতেই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পরিবার, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, সাবেক সিটি মেয়র এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীর জন্য বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।

সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী ও আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নঈম উদ্দিন চৌধুরী অ্যাডভোকেট সুনীল কুমার সরকার।

মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের রূপ পাল্টে দেবে। তিনি এমন কিছু পদক্ষেপ নিচ্ছেন সেইসব গৌরবের অধিকারী অতীতে কখনো আমরা ছিলাম না। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ উৎক্ষেপন, নৌবাহিনীতে সাবমেরিন সংযোজন, কর্ণফুলী টার্নেল নির্মাণ, ঢাকা সিটি মেট্রো রেল এই ধরনের মেগা প্রকল্প শেখ হাসিনার আমলে প্রথম। দেশকে সমৃদ্ধির পথে নিয়ে যাওয়ার জন্য আগামী দশকের শেখ হাসিনা যে পদক্ষেপ নেবেন তা বাঙালি জাতিকে অর্ধশতাব্দীতে এগিয়ে নিয়ে যাবে। চলমান মাদকবিরোধী অভিযান বেস্তে দিতে একটি বিশেষ মহল ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। মাদকের ভয়াবহতা থেকে অমাদের জাতিকে রক্ষা করতে হবে বলেও মত প্রকাশ করেন তিনি।

২৪ নম্বর আগ্রাবাদের মনসুরাবাদ ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক কাউন্সিলর মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাবেক সদস্য যুবনেতা আকরাম হোসেন সবুজের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য দেন নগর যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক ফরিদ মাহমুদ, হালিশহর থানা আওয়ামী লীগের আহবায়ক ও সাবেক কাউন্সিলর ফয়েজ আহমদ, ২৪ নম্বর উত্তর আগ্রাবাদ ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি সৈয়দ মোহাম্মদ জাকারিয়া, চসিক সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর ফারহানা জাবেদ, নগর আওয়ামী লীগের সাবেক নেতা জহির উদ্দিন মোহাম্মদ বাবর, নগর যুবলীগ সদস্য এস এম সাঈদ সুমন, আবদুর রাজ্জাক দুলাল, শেখ নাছির আহমেদ, নগর ছাত্রলীগের সহ সভাপতি জয়নাল উদ্দিন জাহেদ প্রমুখ।

সভা শেষে ফরিদ মাহমুদের উদ্যোগে সমবেত নারী পুরুষদের মাঝে ঈদ উপহারস্বরূপ শাড়ি, লুঙ্গি তুলে দেন অতিথিরা।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩০ ঘণ্টা, জুন ১৩, ২০১৮

এসবি/টিসি


bdnewseveryday.com © 2017 - 2018