BdNewsEveryDay.com
Thursday, December 13, 2018

ঝুঁকিপূর্ণ বেইলি ব্রিজ দিয়ে চলছে যানবাহন

Wednesday, June 13, 2018 - 838 hours ago

ঝুঁকিপূর্ণ বেইলি ব্রিজ দিয়ে চলছে যানবাহন টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলার সখীপুর-বাটাজোড় সড়কের কীর্ত্তনখোলা-ধুমখালীপাড়া বেইলি ব্রিজটি মৃত্যু ফাঁদে পরিণত হয়েছে। ঝুঁকিপূর্ণ হলেও জীবন-মরণ ত্যাগ করে প্রতিদিন এ ব্রিজের উপর দিয়ে পারাপার হচ্ছে ছোট-বড় মিলিয়ে শত শত যানবাহন ও বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ। জীর্ণশীর্ণ ব্রিজটি ভেঙে বড় ধরনের দুর্ঘটনার শিকারসহ বড় ধরনের হতাহতের ঘটনা ঘটতে পারে। যেকোনো যানবাহন ব্রিজের উপরে উঠতেই ব্রিজের কাঁপুনিতে প্রাণের ভয়ে থাকেন যাত্রীরা। সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, ব্রিজের পশ্চিমের অংশে পাটাতন ভেঙে যাওয়ায় অত্যন্ত ঝুঁকি নিয়ে যানবাহন চলাচল করছে। গেল বছর ব্রিজটি সংস্কার  করা হলেও ব্রিজের উপরের স্টিলের পাটাতনগুলো ও মাঝামাঝি স্থানের খুঁটিগুলো দুর্বল হয়ে গেছে এবং অনেক জায়গার পাটাতনগুলো সরে গিয়ে একেবারে নড়বড়ে হয়ে গেছে। ব্রিজটি ভেঙে পড়ার সম্ভাবনা থাকার পরও উপজেলা সদরের সঙ্গে বিকল্প আর কোনো সহজ রাস্তা না থাকার ফলে প্রতিদিন নড়বড়ে এ ব্রিজের উপর দিয়েই শত শত যানবাহন জীবন-মরণ ঝুঁকি নিয়েই চলাচল করছে। ব্রিজের কাছে কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকার পর দেখা যায় ব্রিজটির উপর যানবাহন উঠলেই কাঁপতে শুরু করে। এমনকি ব্রিজের কাঁপুনিতে জীবনের ভয়ে যানবাহনের যাত্রীরা দৌড়াদৌড়ি করে ব্রিজের উপর যানবাহন থেকে যাত্রীরা নেমে পড়েন। এলাকাবাসীর অভিযোগ, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের গাফিলতির কারণে ব্রিজটির সংস্কার কাজ নামকাওয়াস্তে করে চলে যায়, ফলে বেইলি ব্রিজটি নড়বড়ে অবস্থায় থেকে যায়। ব্রিজটির এ নড়বড়ে অবস্থার কারণে যেকোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা থাকার পরও উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ব্রিজের উপর দিয়ে ভারী যানবাহন চলাচলে কোনো ধরণের নিষেধাজ্ঞা জারি না করায় নড়বড়ে ব্রিজের ওপর দিয়েই ঝুঁকি নিয়ে ভারী যানবাহনগুলো চলাচল করছে। তাদের ধারণা, এ ব্যাপারে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে অবিলম্বে ব্যবস্থা না নিলে যেকোনো সময় ব্রিজটি ভেঙে বড় ধরনের দুর্ঘটনাসহ হতাহতের ঘটনা ঘটতে পারে। এ ব্যাপারে  কয়েকজন অটো চালক বলেন, ব্রিজটি এতই দুর্বল যে, গাড়ি নিয়ে বেইলি ব্রিজের উপরে উঠলেই ব্রিজটি কাঁপতে শুরু করে। যেকোনো সময় ব্রিজের খোলা অংশ দিয়ে যান বাহন নিচে পড়ে বড় ধরনের  দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। উপজেলা সদরের সঙ্গে যোগাযোগের সহজ কোনো বিকল্প রাস্তা না থাকায় প্রতিদিন নড়বড়ে এ ব্রিজের উপর দিয়েই জীবনের ঝুঁকি নিয়ে আমাদের গাড়ি চলাতে হয়। কথা হয় স্থানীয় বাসিন্দা আব্দুর রউফ মিয়ার সঙ্গে। তিনি বলেন, ব্রিজটি নির্মাণের পর গতবছর  সংস্কার করা হলেও আবার আগের অবস্থায় ফিরে এসেছে। দিন যতই যাচ্ছে ব্রিজটি ততই মৃত্যুফাঁদে পরিণত হচ্ছে। সখীপুর উপজেলা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান সিকদার মো. ছবুর রেজা বলেন, ঝুঁকিপূর্ণ এ ব্রিজটিতে যেকেনো সময় ঘটতে পারে বড় ধরণের দুর্ঘটনা, তিনি বেইলি ব্রিজটি ভেঙে নতুন ব্রিজ নির্মাণের জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট জানিয়েছেন বলে জানান। ব্রিজটি সংস্কার কিংবা নতুন করে নির্মাণ করার ব্যাপারে জানতে চাইলে উপজেলা প্রকৌশলী কাজী ফাহাদ কুদ্দুছ বলেন, ঝুঁকিপূর্ণ এ ব্রিজটি ভেঙে নতুন ব্রিজ নির্মাণের জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে প্রকল্প প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। তবে আশা করা যায় অচিরেই আমরা ২৯ মিটারের এ ব্রিজটি নতুন করে করতে পারবো। তবে সড়কের ওই ব্রিজটিতে  যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক করতে ভেঙে যাওয়া পাটাতন সরিয়ে শিগগিরই নতুন লোহার পাটাতন বসানো হবে বলেও জানান তিনি।


bdnewseveryday.com © 2017 - 2018