BdNewsEveryDay.com
Tuesday, July 16, 2019

ভালোবাসার টিম টাইগার

Thursday, July 11, 2019 - 117 hours ago

ক্রিকেট নিয়ে লিখব কখনো ভাবিনি। কিন্তু দুটি ম্যাচ স্টেডিয়ামে গিয়ে দেখার পর না লিখে থাকতে পারলাম না। বাংলাদেশের প্রথমটা খেলা ছিল ওভালে, দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে। অসাধারণ এক ম্যাচ। আর তা ছিল আমার জীবনের প্রথম স্টেডিয়ামে গিয়ে সরাসরি খেলা দেখার অভিজ্ঞতা। ওই দিন টাইগারদের পারফরম্যান্সও ছিল উল্লেখযোগ্য।

আগের রাতে উত্তেজনায় ঘুমাতে পারিনি। তারপর খুব সকালে জার্সি পরে (যা আমার ছোট বোন বাংলাদেশ থেকে পাঠিয়েছে) ব্যানার নিয়ে আমরা পুরো পরিবার রওনা দিলাম ওভালের উদ্দেশে। আমার দুই মেয়েরও উৎসাহের শেষ ছিল না। তিন বছরের ছোট মেয়েতো বাংলাদেশের পতাকা হাতে নিয়ে শুধু বাংলাদেশ-বাংলাদেশ বলছিল।ওভালে পৌঁছার পর মনেই হলো না বাংলাদেশের বাইরে আছি। কারণ ট্রেনস্টেশন থেকে শুরু করে স্টেডিয়াম পর্যন্ত শুধু লাল-সবুজ জার্সি পরা মানুষ হই হুল্লোড় করছে, যেটা কিনা সচরাচর এখানে দেখা যায় না। সঙ্গে আছে বিভিন্ন ধরনের সাজগোজ। কেউ টাইগার সেজেছে, কেউবা লাগিয়েছে বাহারি লাল-সবুজ উইগ। অনেকে আবার বিভিন্ন ডিজাইনের লাল-সবুজ টুপি পরেছে। আর বাহারি ফেইস পেইন্টিং তো আছেই।

স্টেডিয়ামে ঢোকার আগেই চারদিকের পরিবেশ দেখে মনটা ভালো হয়ে গেল। কিন্তু ঢোকার পর যে আরও কত বিস্ময় অপেক্ষা করছে, তা চিন্তাও করতে পারিনি। আমাদের আসনগুলো ছিল খেলোয়াড়দের ড্রেসিং রুমের ঠিক নিচে। আসনে বসতে না বসতেই সাকিব, মাশরাফি মাঠ থেকে যাচ্ছেন। এরপর তো সবাই একে একে যেতে থাকল। আমি এত খুশি কোথায় রাখব আর কাকে রেখে কাকে দেখব! এত ভালো লাগছিল যে লিখে বোঝাতে পারব না। বিরতির সময় মিরাজ আর মোসাদ্দেকের সঙ্গে সেলফি তুললাম।

আমাদের পাশেই এক ভাইয়া একটু পরে পরে জোরে জোরে সুন্দর সুন্দর স্লোগান দিয়ে সবাইকে মাতিয়ে রাখছিলেন। ওই দিন কেন জানি না একবারের জন্যও মনে হয়নি বাংলাদেশ জিতবে না। এত বেশি আত্মবিশ্বাস ছিল যে, টাইগাররা তো আজকে জিতবে এবং জিতলও! ওভালজুড়ে শুধু বাংলাদেশ আর লাল-সবুজের ছড়াছড়ি, কী যে অদ্ভুত সুন্দর!

বাংলাদেশের জাতীয় সংগীতের সময় সারা স্টেডিয়াম যেন লাল সবুজের ঢেউয়ে মেতে ছিল। পুরো গানটাই গাওয়া হলো। আরেকবার মনে হলো আমাদের জাতীয় সংগীতের মতো এত মধুর মায়ার আর কী হতে পারে। ওই দিন যে এই শান্ত আমি কী চিৎকার আর নাচানাচি করেছি, তা আমি নিজেও বুঝিনি। প্রতিটি চার-ছক্কা বা উইকেট পড়লেই নিজের অজান্তেই এত জোরে চিৎকার করে লাফিয়ে উঠেছিলাম প্রচণ্ড খুশিতে। ম্যাচটা আমার জীবনে স্মরণীয় হয়ে থাকবে সব সময়।গতকাল হয়ে গেল আইসিসি ক্রিকেট ওয়ার্ল্ড কাপের প্রথম সেমিফাইনাল খেলা। ভারতের সঙ্গে নিউজিল্যান্ডের। খেলার শুরুতে মনে হলো আহারে বাংলাদেশ তো আজকে খেলতে পারত সেমিফাইনালে। বাংলাদেশ খেলেনি তাতে কী হয়েছে। টাইগারদের জন্য আমাদের ভালোবাসা একটুও কমেনি। সব সময় আছি টাইগারদের সঙ্গে। কোনো একদিন বাংলাদেশ সেমিফাইনাল, ফাইনাল খেলবে, সেই প্রত্যাশা আর স্বপ্ন নিয়ে সব সময় টাইগারদের সঙ্গে আছি।

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে


bdnewseveryday.com © 2017 - 2018