BdNewsEveryDay.com
Sunday, November 17, 2019

প্রবাসীর সন্তানদের চাকরিতে অগ্রাধিকার দাবি

Saturday, June 15, 2019 - 838 hours ago

২০১৫ সালে লন্ডনে গিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের তৎকালীন গভর্নর আতিউর রহমান বলেছিলেন, প্রবাসীদের বিনিয়োগ বাড়াতে শিগগিরই পাউন্ড স্টার্লিং বন্ড চালু হবে। তবে এখনও সেই বন্ড চালু হয়নি। ফলে যুক্তরাজ্যে থাকা প্রবাসীরা কেউ বিনিয়োগের সুযোগও পাননি। যদিও এ বন্ডের মাধ্যমে দেশের রিজার্ভ বাড়ানোর সুযোগ ছিল। এতে ডলারের সংকটও কিছুটা কাটতো।

যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশিদের শীর্ষ ব্যবসায়িক সংগঠন ইউকে বাংলাদেশ ক্যাটালিস্ট অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের (ইউকে বিসিসিআই) নেতারা ৫ দিনের সফরে দেশে এসে আজ শনিবার সংবাদ সম্মেলন করে এসব কথা বলেন।

সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের নেতারা যুক্তরাজ্যের ব্যবসায়ীদের দেশে বিশেষ বিনিয়োগের সুযোগ, সহজে মুনাফা নেওয়া, পাউন্ড স্টার্লিন বন্ড চালু ও প্রবাসীদের সন্তানেরা যেন দেশে চাকরির ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার পায় সেই দাবি জানান।

আজ রাজধানীর বনানীতে একটি হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনটির চেয়ারম্যান ইকবাল আহমেদ বলেন, ‘প্রবাসীদের প্রণোদনার উদ্যোগটি খুবই ভালো হয়েছে। এতে প্রবাসী আয় অনেক বাড়বে। তবে এটা আরও বাড়াতে পারলে ভালো হতো।’ তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশের সেবা ও তথ্যপ্রযুক্তি খাতে আমরা বিনিয়োগে আগ্রহী। বিনিয়োগের মুনাফা যাতে সহজে যুক্তরাজ্যে নেওয়া যায়, তারও ব্যবস্থা করতে হবে। আমাদের জন্য পাউন্ড স্টার্লিং বন্ড চালুর ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল, তা এখনো কার্যকর হয়নি। ফলে আমরা চাইলেও বিনিয়োগ করতে পারছি না। যদিও ডলার বন্ড চালু রয়েছে।’

ইউকেবিসিসিআই এর জ্যেষ্ঠ ভাইস প্রেসিডেন্ট এম এ রউফ বলেন, ভারতীয়রা বেতন হিসেবে প্রতি মাসে প্রায় ২ বিলিয়ন ডলার নিয়ে যাচ্ছে। আর আমাদের শিক্ষিত সন্তানেরা দেশে ফেরত আসছে না। তাদের জন্য সরকারকে পরিবেশ তৈরি করতে হবে।

ইউকেবিসিসিআই বাংলাদেশ অধ্যায়ের আহ্বায়ক শওকত আজিজ বলেন, ‘আমরা বিদেশে অনেক বিনিয়োগ করেছি। এখন দেশে বিনিয়োগের সময় এসেছে।’ এ সময় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনটির সংগঠনটির প্রেসিডেন্ট বজলুর রশিদ, পরিচালক আনোয়ার বাবুল মিয়া, ফারহানা হোসেন নীলা, অলি খান, এস আই আজাদ আলি প্রমুখ।

৫ দিনের সফরে ২৩ সদস্যের প্রতিনিধি দলটি বাণিজ্যমন্ত্রী, শিল্পমন্ত্রী, প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা, বাংলাদেশে বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ, বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ, এফবিসিসিআই, ঢাকা চেম্বার, চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ, সিলেট সিটি মেয়রের সঙ্গে আলোচনা করবেন।

২০১৪ সালে গঠন হয় ইউকেবিসিসিআই।

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে


bdnewseveryday.com © 2017 - 2018