BdNewsEveryDay.com
Monday, July 22, 2019

শিন্তোর মন্দিরে প্রার্থনা করে সিংহাসন ছাড়লেন সম্রাট আকিহিতো

Tuesday, April 30, 2019 - 838 hours ago

সিংহাসন ছাড়লেন জাপানের সম্রাট আকিহিতো। তিন দশক দায়িত্ব পালন শেষে আজ মঙ্গলবার ৮৫ বছর বয়সী সম্রাট তার পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন। জাপানের রাজপরিবারের দুশো বছরের ইতিহাসে এই প্রথম কোনো সম্রাট তার সিংহাসন ত্যাগ করলেন। তবে মেয়াদ পূর্ণ হওয়ার আগেই এ কাজটি করলেন তিনি। আজ সকালে তিনি অবসর জীবনে পা রাখেন শিন্তো ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনার মাধ্যমে। এ উপলক্ষে জাপানে ১০ দিনের সাধারণ ছুটি ঘোষণা হয়েছে। ঐতিহাসিক ক্ষণটিকে স্মরণিয় রাখতে কয়েক দশকের মধ্যে সবচেয়ে বড় ছুটি পেয়েছেন জাপানিরা। 

এর আগে ২০১৬ সালে আকিহিতো দেশবাসীকে দেওয়া ভাষণে সম্রাটের পদ ছাড়ার ইঙ্গিত দেন। ক্যান্সারসহ নানা রোগে কষ্ট পাওয়া ছাড়াও বয়সের কারণে শারীরিক অবস্থা ভালো যাচ্ছিল না তার। সেই কারণেই তিনি প্রথা ভেঙে সরে যাচ্ছেন।

জাপানের আইনে সম্রাটের সিংহাসন ত্যাগ করার বিধান ছিল না। তবে ২০১৬ সালে আকিহিতোর ঘোষণার পর বিশেষজ্ঞ কমিটি তৈরি হয়। সেই কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী শিনজো আবে নতুন আইন করে সম্রাটের সিংহাসন ছাড়ার পথ প্রশস্ত করে দিয়েছে।

আকিহিতোর অবসরের পর এ দায়িত্বভার গ্রহণ করবেন বড় ছেলে ক্রাউন প্রিন্স নারুহিতো। আকিহিতো ক্রিসেনথিমাম সিংহাসনে ৩০ বছর আসীন ছিলেন। জাপানের যুদ্ধ পরবর্তী আধুনিকায়নের সময়টাতে  আকিহিতো দায়িত্বপালন করে গেছেন। ২০২০ সালে অলিম্পিক গেমসের দায়িত্বপ্রাপ্তির বিডেও সফল হয়েছেন তিনি। ১৯৯০ এর দশকের অর্থনৈতিক মন্দাসহ বেশ কয়েকটি মারাত্মক প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলা করেছেন সম্রাট। 

জাপানের রাজ পরিবারকে সাধারণ মানুষের কাছে আনার জন্যে তিনি ব্যাপক জনপ্রিয়তা ও সম্মান লাভ করেন। জাতির দ্বিতীয় যুদ্ধপরবর্তী ক্ষত নিরাময়ে তার ভূমিকা অনন্য। তিনি শেষবারের মতো জনসমক্ষে উপস্থিত হন জানুয়ারিতে। তখন প্রাসাদের আশপাশে রেকর্ড পরিমাণ মানুষের সমাগম ঘটে।  

জাপানের রাজপরিবার নিয়ে বই লিখেছেন জাপানিজ সাংবাদিক মাকোতো ইনোই। তিনি আকিহিতোকে 'বৈপ্লবিক সম্রাট' হিসেবে তুলে ধরেছেন। 

জাপানে এর আগে ১৮১৭ সালে শেষবারের মতো সিংহাসন ছেড়েছিলেন সম্রাট কোকাকু। তখন থেকেই পরবর্তী সম্রাটগণ মৃত্যুর আগ পর্যন্ত সাম্রাজ্য শাসন করে গেছেন। 

মাকোতো আরো লিখেছেন, সংবিধানের অনুযায়ী জাপানি সম্রাট একজন প্রতীক হিসেবে বিবেচিত। কিন্তু আমি মনে করি, এই সম্রাট তার প্রতীকী অস্তিত্বকে মানবিক পর্যায়ে নিয়ে আসতে পেরেছেন।    সূত্র: এনবিসি   


bdnewseveryday.com © 2017 - 2018