BdNewsEveryDay.com
Monday, June 17, 2019

নতুন বাজার ও পণ্যের বহুমুখীকরণে জোর দিন

Friday, January 11, 2019 - 838 hours ago

নতুন বাজার ও পণ্যের বহুমুখীকরণে জোর দিন দেশ এগিয়ে চলেছে ফলে শত প্রতিকূলতা সত্ত্বেও আমাদের অর্থনৈতিক উন্নতি দৃশ্যমান সত্য। বাংলাদেশ রফতানি আয়ে ইতিবাচক ধারা বজায় রেখেছে। ২০০৭-৮ অর্থবছরে দেশের পণ্য রফতানির পরিমাণ ছিল ১৪.১০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। বিগত ১০ বছরে সে রফতানির পরিমাণ বেড়ে ৩৬.৭৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে দাঁড়িয়েছে। ২০২১ সালে দেশের রফতানি ৬০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার নির্ধারণ করা হয়েছে। এর মধ্যে সরকারের আরেকটি ইতিবাচক পদক্ষেপ হলো রফতানি আয় বাড়াতে নানামুখী উদ্যোগ। উদ্যোগে রয়েছে সময়োপযোগী রফতানিনীতি প্রণয়ন, ২৭ পণ্য রফতানিতে ২ থেকে ২০ শতাংশ পর্যন্ত নগদ আর্থিক সহায়তা, রফতানিকারকদের প্রতিবছর সিআইপি ও জাতীয় রফতানি ট্রফি প্রদান, বিদেশি মিশনে বাণিজ্য উইংয়ের সংখ্যা বাড়ানো, আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলায় অংশগ্রহণ। এ ছাড়া রফতানিমুখী শিল্পে উৎসে কর কমিয়ে দশমিক ২৫ শতাংশ করা। মূলত ব্যবসায়ীদের আমদানি ও রফতানি বাণিজ্য সহজ করার জন্য বাণিজ্য মন্ত্রণালয় প্রতি তিন বছর পর দেশি শিল্পকে সুরক্ষা দিয়ে আমদানি ও রফতানিনীতি প্রণয়ন করে। বাংলাদেশের প্রধান রফতানি পণ্য এখন পর্যন্ত তৈরি পোশাক হলেও অন্যান্য পণ্যের রফতানিও দ্রুত বাড়ছে। এগুলো হলো চামড়া, চামড়াজাত পণ্য, কৃষিপণ্য, প্লাস্টিক, প্রকৌশল, ওষুধ, ফার্নিচার সফটওয়্যার, ইলেকট্রনিক ইত্যাদি। রফতানি আয়ের প্রবৃদ্ধির ধারাবাহিকতা বজায় রাখা জাতীয় অর্থনীতির জন্য জরুরি। আমরা চাই বাংলাদেশের রফতানি আয়ে প্রবৃদ্ধির এই ধারা অব্যাহত থাকুক। এ জন্য গ্যাস, বিদ্যুৎ ও জ্বালানিসহ অবকাঠামোগত সুযোগ-সুবিধা বাড়াতে হবে। ব্যাংক ঋণসহ পুঁজির জোগান বৃদ্ধি ও সহজলভ্য করতে হবে। সেই সঙ্গে কমাতে হবে আমলাতান্ত্রিক জটিলতা। সর্বোপরি বাজার খোঁজার পাশাপাশি পণ্যের বহুমুখীকরণের ওপর আরও জোর দিতে হবে। দেশ খান রামপুরা, ঢাকা


bdnewseveryday.com © 2017 - 2018