BdNewsEveryDay.com
Monday, December 17, 2018

২১ বছরে পা দিলেন বচ্চন পরিবারের নাভিয়া

Thursday, December 06, 2018 - 268 hours ago

আজ ২১ বছরে পা দিয়েছেন বচ্চন পরিবারের কন্যা নাভিয়া নাভেলি। নাভিয়া বলিউডের মেগাস্টার অমিতাভ বচ্চনের নাতনি। অমিতাভের মেয়ে শ্বেতা বচ্চন নন্দা ও জামাই নিখিল নন্দার বড় মেয়ে নাভিয়া নাভেলি।

মেয়েকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে একটি মিষ্টি ছবি শেয়ার করেছেন মা শ্বেতা বচ্চন নন্দা। শ্বেতা পোস্টে লিখেছেন, ‘বছরগুলো ঠিক উড়ে যায়নি, তারা সময় নিয়েছে এবং প্রতিটি বছর একটু একটু করে উপার্জন করেছ তুমি। আমরা একসাথেই বড় হয়েছি, আমরা ২১ বছরে দাঁড়িয়ে আছি। ছয় মাস বয়সের সেই কান্নার সময় থেকে আজ ২১... শুভ জন্মদিন নাভিয়া।’

শ্বেতা বচ্চন ছয় মাস বয়সী নাভিয়া নাভেলির ছবি শেয়ার করেছেন ইনস্টাগ্রামে।



নানু অমিতাভ বচ্চনের সঙ্গে নাভিয়া নাভেলি। ছবি : ইনস্টাগ্রাম

নাভিয়া নাভেলি শ্বেতা বচ্চন ও নিখিল নন্দার দুই সন্তানের মধ্যে বড়। তাঁর ভাই অগস্ত্য চলতি বছরের নভেম্বরে ১৮ বছরে পা দিয়েছেন।

নাভিয়া চলচ্চিত্র বা টেলিভিশনে কোথাও অভিনয় করেননি, তবে তিনি বেশ জনপ্রিয়। বি-টাউনের তারকাসন্তানদের নিয়ে এমনিতেই আগ্রহ সবার। সম্প্রতি ডিজাইনার মণীষা জয়সিংয়ের সহযোগিতায় তাঁর মায়ের ডিজাইনার লেবেলের জন্য মডেলিং করেছেন তিনি।

চলচ্চিত্র জগতের মধ্যে নাভিয়ার ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের মধ্যে রয়েছেন খুশি কাপুর, যিনি প্রয়াত অভিনেত্রী শ্রীদেবী ও প্রযোজক বনি কাপুরের কন্যা। শাহরুখ খানের পুত্র আরিয়ানের সঙ্গে লন্ডনে পড়াশোনা করছেন তিনি।



মা শ্বেতা বচ্চনের সঙ্গে নাভিয়া নাভেলি। ছবি : ইনস্টাগ্রাম

নাভিয়ার নানু অমিতাভ বচ্চন ও নানি জয়া বচ্চন বলিউডের দুই বিখ্যাত অভিনেতা। মামা অভিষেক বচ্চন ও মামি সাবেক বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চনও অভিনেতা। কিন্তু তাঁদের পদাঙ্ক অনুসরণ করে চিত্রজগতে পা দেবেন কি না, তা এখনো প্রকাশ করেননি নাভিয়া। তাঁর মা শ্বেতা বচ্চনও অভিনয় দুনিয়ায় যাননি।

সংবাদ সংস্থা আইএএনএসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে শ্বেতা বচ্চন জানিয়েছিলেন, মেয়ে নাভিয়া যদি অভিনয় করতে চায় তবে তিনি বেশ ‘চিন্তিত’ হবেন। শ্বেতা বচ্চন নন্দার লেখা বই ‘প্যারাডাইজ টাওয়ার্স’ চলতি বছরের অক্টোবরে প্রকাশিত হয়েছে। নাভিয়ার বেশ কিছু ছবি সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার দিয়েছেন মা শ্বেতা। সূত্র : এনডিটিভি


bdnewseveryday.com © 2017 - 2018