BdNewsEveryDay.com
Sunday, July 22, 2018

নীলফামারীর ডোমারে বিদ্যুতায়িত হয়ে শিশুর মৃত্যু

Wednesday, May 16, 2018 - 838 hours ago

নীলফামারীর ডোমারে বিদ্যুতের ছেড়া তারে বিদ্যুতায়িত জড়িয়ে সাব্বির রহমান (৮) নামের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। এ সময় আহত হয় আরো দুই শিশু। তাদেরকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আজ বুধবার দুপুরে উপজেলার বামুনিয়া ইউনিয়নের কাচারিপাড়া গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে।

স্থানীয়রা জানায়, গত ১০ মে রাতে জেলার ডোমার ডিমলা ও জলঢাকা উপজেলার ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া কালবৈশাখী ঝড় ও শিলাবৃষ্টির সময় বিক্ষিপ্তভাবে বিদ্যুতের তার ছিড়ে পড়ে এলাকার বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ থাকে। আজ বুধবার দুপুরে ওই গ্রামের আতাউর রহমানের ছেলে সাব্বির রহমান (৮), রবিউল ইসলামের মেয়ে সুমাইয়া আক্তার (৮), ও রবিউল আলমের মেয়ে রুবিনা আক্তার (৮) তাদের বাড়ির পাশে খেলছিল। এ সময় পাশে থাকা ছেড়া তারে হঠাৎ বিদ্যুৎ সরবরাহ চালু হলে সাব্বির বিদ্যুৎস্পৃষ্ঠ হয়ে মাটিতে পড়ে যায়। সুমাইয়া আক্তার ও রুবিনা তাকে উদ্ধার করতে গেলে তারাও বিদ্যুৎস্পৃষ্ঠ হয়ে মাটিতে পড়ে যায়। পরে উপস্থিত লোকজন তাদের উদ্ধার করে ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সাব্বিরকে মৃত ঘোষণা করেন। অপর দুই শিশুর মধ্যে রুবিনা ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও সুমাইয়া রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রুবিনা আক্তার জানায়, তারা তিনজনই দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ে। দুপুরে বাড়ির পাশে খেলার সময় সাব্বির মাটিতে পড়ে যায়। সাব্বিরকে উঠাতে গিয়ে তারা দুজনে মাটিতে পড়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে।

ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক মো. খায়রুল ইসলাম বলেন, বুধবার দুপুর দেড়টার দিকে বিদ্যুৎস্পৃষ্ঠ তিন শিশুকে স্বাস্থ্য কেন্দ্রে আনেন তাদের স্বজনরা। স্বাস্থ্য কেন্দ্রে আনার আগেই সাব্বিরের মৃত্যু হয়। সুমাইয়াকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর আশঙ্কাজনক অবস্থায় রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। শঙ্কামুক্ত অবস্থায় রুবিনার চিকিৎসা চলছে।

এদিকে রুবিনার মা মুক্তা বেগম বলেন, ঝড়ে বাড়ির পাশে পিডিবির বিদ্যুতের তার ছিড়ে পড়ে ছিল। বিদ্যুতের লোকজন লাইনের কাজ করছিল। হঠাৎ করে বিদ্যুৎ চালু হওয়ায় এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। তিনি আরো বলেন, তারা যদি ভালোভাবে দেখে শুনে বিদ্যুৎ চালু করত তাহলে এ দুর্ঘটনা ঘটত না।

এ বিষয়ে ডোমার বিদ্যুৎ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সাইফুল ইসলাম বলেন, 'বামুনিয়ায় বিদুৎস্পৃষ্ঠে  একজন শিশু নিহতের কথা শুনেছি। কিভাবে ঘটনাটি ঘটেছে সেটি এখনো আমি জানি না। সহকারী প্রকৌশলীর কাছে ঘটনা জেনে পরে জানাব।'


bdnewseveryday.com © 2017 - 2018