BdNewsEveryDay.com
Saturday, October 20, 2018

মাটির কাজ শেষ, চলছে রঙের প্রলেপ

Friday, October 12, 2018 - 201 hours ago

সনাতন ধর্মালম্বীদের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা শুরু হচ্ছে আগামী সোমবার। ভাস্কররা প্রতিমায় মাটির কাজ শেষ করে রঙের প্রলেপ দিতে শুরু করেছেন।

সিলেটের বিশ্বনাথে এবার ২৪টি মন্দিরে শারদীয় দুর্গোৎসব। প্রতিমাকে দৃষ্টিনন্দন করতে শিল্পীরা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। উপজেলায় এ বছর সার্বজনীন ২২টি ও ব্যক্তিগত দুইটি পূজা মণ্ডপকে ঘিরে হবে দুর্গোৎসব। দুর্গাপূজা সফলভাবে করতে সম্প্রতি পুলিশ প্রশাসনের উদ্যোগে উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদ নেতৃবৃন্দের সঙ্গে মতবিনিময় অনুষ্ঠিত হয়।

দুর্গোৎসব সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ করতে প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট পূজামণ্ডপ ও পূজা উদযাপন পরিষদ সজাগ। আগামী ১৫ অক্টোবর দুর্গা পূজা শুরু হবে। ১৮ অক্টোবর দশমী পূজা ও বির্সজনের মধ্যে দিয়ে উৎসবের সমাপ্তি হবে।

আজ শুক্রবার সকালে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, মণ্ডপগুলোতে প্রতিমা তৈরির কাজ প্রায় শেষ। অনেক প্রতিমা শিল্পী এখন রং তুলির কাজ শেষ পর্যায়ে নিয়ে এসেছেন।

এবার ২৪ পূজা মণ্ডপের মধ্যে ১৩টি ঝুঁকিপূর্ণ। অধিক ঝুঁকিপূর্ণ চারটি আর ঝুঁকিপূর্ণ ৯টি হিসেবে চিহ্নিত করেছে পুলিশ প্রশাসন। সার্বক্ষণিক মাঠে থাকবে মোবাইল টিম। উৎসবকে ঘিরে প্রশাসনের পক্ষ থেকে নেওয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা। মণ্ডপগুলোতে  শেষ প্রস্তুতির কাজ সেরে নিচ্ছেন সবাই।

পুলিশ প্রশাসনের তালিকা অনুযায়ী অধিক ঝুঁকিপূর্ণ মণ্ডপগুলো হলো সার্বজনীন উপজেলার দুর্গাবাড়ী দিঘলী মণ্ডপ, বৃন্দাবন জিউর আশ্রম বৈরাগী বাজার মণ্ডপ, বিশ্বনাথ সদর পুরান বাজার মণ্ডপ এবং কালিবাড়ী কালিগঞ্জ মণ্ডপ।

ঝুঁকিপূর্ণ মণ্ডপগুলো হলো একতা যুব সংঘ মণ্ডপ দিঘলী, বহুমুখী দিঘলী উত্তর পাড় মণ্ডপ, সূর্যোদয় সনাতন সংঘ মদনপুর- নোয়ারাই মণ্ডপ, চন্দ্রগ্রাম মণ্ডপ, সনাতন সংঘ চন্দ্রগ্রাম মণ্ডপ, রায়পুর মণ্ডপ, চরচণ্ডি মণ্ডপ, কালিজুরী বাগিছা বাজার মণ্ডপ, রামাইচক রামপুর মণ্ডপ। 

উপজেলার জানাইয়া মণ্ডপে মাটির কাজ শেষ করে রঙের প্রথম প্রলেপ দিচ্ছেন প্রতিমা তৈরি কারিগর বিরেন্দ্র পাল। তিনি এ বছর আটটি মণ্ডপে প্রতিমা তৈরির কাজ করছেন। গত দেড় মাস ধরে তিনি এসব মন্দিরের প্রতিমা তৈরি করছেন। প্রতিটি মণ্ডপে প্রতিমা তৈরির পারিশ্রমিক পাবেন ২৫ হাজার টাকা করে বলে জানান তিনি।

উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি অজিত কুমার পাল বলেন, আগামী ১৫ অক্টোরব শারদীয় দুর্গাপূজা শুরু হবে। ১৫ সেপ্টেম্বর দশমী পূজা ও বির্সজনের মধ্যে দিয়ে এ উৎসবের সমাপ্তি হবে। এ বছর ব্যক্তিভাবে দুইটি মণ্ডপ ও স্বার্বজনীন ২২টি মণ্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হবে। উৎসব শান্তিপূর্ণ করতে সবার প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

বিশ্বনাথ থানার ওসি শামসুদ্দোহা বলেন, উপজেলার পূজা মণ্ডপগুলোতে পুলিশ মোতায়েন থাকবে। কেউ বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করলে তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


bdnewseveryday.com © 2017 - 2018