BdNewsEveryDay.com
Monday, December 10, 2018

ফেরি চলে তো চলে না!

Thursday, September 20, 2018 - 838 hours ago

মাদারীপুর: কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচলে সৃষ্টি হয়েছে অচলাবস্থা। নাব্য সংকট চরম আকার ধারণ করায় নৌরুটে আটকে যাচ্ছে ফেরি। ফলে কখনো চলছে, আবার কখনও বন্ধ থাকছে ফেরি চলাচল।

দুর্ভোগ পিছু ছাড়ছে না এ নৌরুট ব্যবহারকারীদের।

বুধবার (১৯ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় লৌহজং টার্নিং পয়েন্টে আটকে থাকা ফেরি এনায়েতপুরী রাত ২টার দিকে ডুবোচর থেকে উদ্ধার করা হয়। পণ্যবাহী কয়েকটি গাড়ি নিয়ে শিমুলিয়া ঘাট থেকে কাঁঠালবাড়ী আসার পথে লৌহজং টার্নিং পয়েন্টের ডুবোচরে ফেরিটি আটকা পড়েছিল। 

বিআইডব্লিউটিসি'র কাঁঠালবাড়ী ঘাট সূত্র জানায়, লৌহজং টার্নিং পয়েন্টে নাব্য সংকট চরম আকার ধারণ করেছে। ধারণ ক্ষমতার তুলনায় কম পরিবহন নিয়েও ফেরি আটকে যাচ্ছে। এদিকে, রো রো ও ডাম্পসহ বড় ফেরি চলাচল বন্ধ রয়েছে। শুধু কয়েকটি কে-টাইপ (ছোট ফেরি) ফেরি চললেও ডুবোচর বাধার সৃষ্টি করছে। বৃহস্পতিবার (২০ সেপ্টেম্বর) মাত্র পাঁচ ফেরিতে চলছে পারাপার। 

এদিকে, নাব্য সংকটের কারণে দুর্ঘটনা এড়াতে বুধবার (১৯ সেপ্টেম্বর) রাত ১১টা থেকে সব ফেরি চলাচল বন্ধ ছিল এ নৌরুটে। বৃহস্পতিবার সকাল সাতটার দিকে শিমুলিয়া থেকে তিনটি কে-টাইপ ফেরি চলাচল শুরু করে। ফেরি চলাচল দীর্ঘ সময় বন্ধ থাকায় শিবচরের কাঁঠালবাড়ী ঘাট এলাকায় পরিবহন যাত্রীদের দুর্ভোগ দেখা দিয়েছে। ঘাট এলাকায় আটকে আছে পণ্যবাহী তিন শতাধিক ট্রাক।

বিআইডব্লিউটিএ'র শিমুলিয়া ঘাটের মেরিন আহম্মদ আলী জানান, পদ্মায় স্রোতের তীব্রতা থাকায় চলতে হিমশিম খাচ্ছে ফেরিগুলো। আবার টার্নিং পয়েন্টে গিয়ে ডুবোচরে আটকে যাচ্ছে। স্রোত অতিক্রম করতে ফেরিগুলোকে সর্বোচ্চ শক্তি দিয়ে চলতে হয়, আবার ডুবোচরের কারণে গতি কমিয়ে চলতে হচ্ছে। সব মিলিয়ে ফেরি চলাচলে অচলাবস্থা সৃষ্টি হয়েছে। নাব্য সংকট নিরসনে খনন কাজ চললেও ঘুর্ণি স্রোতের কারণে পলি এসে জমা হচ্ছে টার্নিং পয়েন্টে।

বিআইডব্লিউটিসি'র কাঁঠালবাড়ী ফেরিঘাটের ব্যবস্থাপক আব্দুস সালাম মিয়া বলেন, নাব্য সংকটের কারণে ফেরি চলাচল কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে। বুধবার রাত থেকে বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত সব ফেরি চলাচল বন্ধ ছিল। ধারণ ক্ষমতার কম যানবাহন নিয়ে কয়েকটি ফেরি চলাচল করছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৫০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৮ এসআই


bdnewseveryday.com © 2017 - 2018