BdNewsEveryDay.com
Monday, December 10, 2018

ভোটে কালো টাকার শঙ্কা আ. লীগ প্রার্থী খালেকের

Sunday, May 13, 2018 - 838 hours ago

ভোটের আগে আনুষ্ঠানিক প্রচারের শেষ দিন রোববার নগরীর ৩১ নম্বর ওয়ার্ডের দৌলতপুর এলাকায় গণসংযোগে গিয়ে তিনি বলেন, “উনি যদি নিজেকে মেয়র দাবি করে থাকেন, তাহলে তো উনার দুরভিসন্ধি আছে; উনারা ভোট ডাকাতি করবে, কিংবা কালোটাকা ছড়াইয়া তারা কিছু একটা করবে।

“না হয়, এতো শিওর হয় কীভাবে? এতো কনফার্ম সে কীভাবে হয়, আমি মেয়র হবই? নিশ্চয় তাদের উদ্দেশ্য খারাপ, এই শহরে কালোটাকা ছড়ানোর চেষ্টা তারা করতেছে। অতএব এটা প্রতিহত করা হবে।”

মঙ্গলবার এই সিটি করপোরেশনের নতুন জনপ্রতিনিধি নির্বাচনে ভোট দেবে খুলনা নগরবাসী। এ নির্বাচনে খুলনায় পাঁচজন মেয়র প্রার্থীর পাশাপাশি ৩১ ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১৪৮ জন এবং সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ৩৯ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন।

তাদের মধ্যে একজনকে মেয়র, ৩১ জনকে কাউন্সিলর এবং সংরক্ষিত ওয়ার্ডের জন্য ১০ জনকে নারী কাউন্সিলর নির্বাচিত করবে নগরবাসী। এ নির্বাচনে ভোটার আছেন চার লাখ ৯৩ হাজার ৯৩ জন।

দলীয় প্রতীকের এ নির্বাচনে মেয়র পদে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী তালুকদার আব্দুল খালেকের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আছেন ধানের শীষের প্রার্থী বিএনপি নেতা নজরুল ইসলাম মঞ্জু।

২০০৮ থেকে পাঁচ বছর খুলনার মেয়রের দায়িত্ব পালন করা তালুকদার খালেক ২০১৩ সালের নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী বিএনপির মনিরুজ্জামান মনির কাছে হেরে গিয়েছিলেন। এবার বাগেরহাট-৩ আসনের সংসদ সদস্য পদ ছেড়ে তিনি আবারও মেয়র পাদে ভোটের লড়াইয়ে নেমেছেন।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তালুকদার খালেক বলেন, “আমি তো মেয়র ছিলাম একসময়। জনগণ যাকে ভোট দিয়ে বানাবে সেই মেয়র হবে। জনগণের উপর আস্থা রাখতে হবে। খুলনার মানুষ ভোট দেবে। আমাদের অসমাপ্ত কাজ করতে সমর্থন দেবে।”

নির্বাচনী পরিবেশ নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “আমি সন্তুষ্ট। নির্বাচন কমিশনের এখন পর্যন্ত যে কর্মকাণ্ড, তাতে এখন পর্যন্ত বিতর্কিত কিছু আমার চোখে পড়ে নাই। আমি মনে করি, অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য নির্বাচন কমিশনের যা যা করণীয় তারা সে কাজটি করেছে। আমি মনে করি, একটু অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য এই ব্যবস্থা যথেষ্ট।”

বিএনপির পক্ষ থেকে ‘গণগ্রেপ্তারের’ যে অভিযোগ করা হচ্ছে, তা উড়িয়ে দেন তালুকদার খালেক।

“তাদের কোনো কর্মী মাঠে কাজ করেছে এমন আমার সঙ্গে দেখা হয় নাই। গোপনে গোপনে কাজ করতে পারে, অমূলক সন্দেহটা তারা ২০১৩ সালেও করেছে। এবারও আমি মনে করি, জনগণ তাদের কোনো কথার মূল্য দেবে না।”

রোববার সকালে ৩১ নম্বর ওয়ার্ডের দৌলতপুর ছাড়াও দফাদারপাড়াসহ বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ করেন নৌকার প্রার্থী তালুকদার খালেক।


bdnewseveryday.com © 2017 - 2018