BdNewsEveryDay.com
Tuesday, September 25, 2018

নঈম নিজাম বললেন অদ্ভুত মামলার ফল সরকারের বিপক্ষে যেতে পারে

Friday, September 14, 2018 - 254 hours ago

নির্বাচনকে সামনে রেখে বিরোধী রাজনৈতিক শক্তির বিরুদ্ধে হঠাৎ করেই বেড়ে গেছে মামলার পরিমাণ। পুলিশ এমন কিছু মামলা দিয়েছে যার বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়ে রয়েছে প্রশ্ন। ৮৪ বছরের বৃদ্ধ, যিনি প্যারালাইজড তার বিরুদ্ধে হয়েছে নাশকতার মামলা। ঘটনার সময় যিনি হজের সফরে ছিলেন তার বিরুদ্ধেও হয়েছে মামলা। তাছাড়া মৃত ব্যক্তিকে নাশকতা করতে দেখার পুলিশ প্রতিবেদন নিয়েও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চলছে নানা হাস্যরস। এসব বিষয়কে অদ্ভুত আখ্যায়িত করেছেন বাংলাদেশ প্রতিদিনের সম্পাদক নঈম নিজাম। এর দ্বারা শেষ সময়ে এসে সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণœ হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন তিনি। এসবের ফলাফল সরকারের বিপক্ষে যেতে পারে বলেও সতর্ক করে দিয়েছেন রাজনীতির এই বিশ্লেষক। গত বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে চ্যানেল আইয়ের ‘আজকের সংবাদপত্র’ অনুষ্ঠানে আলোচক ছিলেন নঈম নিজাম। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক মতিউর রহমান চৌধুরী। নঈন নিজাম ব?লেন, অদ্ভুত সব ঘটনা ঘটছে। পু?লিশ?কে এ ব্যাপারে আরো সচেতন থাকার দরকার ছিল। যারা আইনশৃঙ্খলার স্বাভা?বিক গ?তি?কে নষ্ট ক?রে তাদের চিহ্নিত ক?রে ব্যবস্থা নেয়া উচিত ছিল। কিন্তু পুলিশ মামলা দিল মৃত ব্যক্তির না?মে। যিনি প্যারালাইসড, ঘর থে?কে বের হ?তে পা?রেন না গত ক?য়েক বছ?র ধরে; কিংবা যিনি ওই সময়টায় হ?জে ছি?লেন, তাদের বিরুদ্ধে মামলা হচ্ছে। যারা অপরাধই ক?রে?নি তা?দের বিরু?দ্ধে মামলা দি?লে সেটা জনগণ গ্রহণ করবে না। আ?মি ম?নে ক?রি সাম?নে নির্বাচন, এ ক্ষে?ত্রে সরকা?রেরও ভাবমূ?র্তি নষ্ট হ?তে পারে। ফলাফল সরকা?রের বিপ?ক্ষেও যে?তে পা?রে। ক?মি?টি ধ?রে ধ?রে মামলা এমন খবরের ব্যাখ্যায় নঈম মিজান ব?লেন, বর্তমানে কর্মসূ?চির চেয়ে মামলা বে?শি হ?চ্ছে। আর এই রাজ?নৈ?তিক ?বিষয়?টি সবসময়ই আমা?দের দে?শে হ?য়ে থা?কে। ক্ষমতাসীনরা খুব স্বাভা?বিকভা?বেই তা?দের অবস্থান ধ?রে রাখার জন্য প্র?তিপ?ক্ষের বিপ?ক্ষে এক?টি অবস্থান নি?য়ে থাকে। আবার প্র?তিপক্ষও ম?নে ক?রেন, এক?টি প্র?ক্রিয়ার ম?ধ্য দি?য়ে আমা?কেও ক্ষমতায় আস?তে হবে। নঈম ব?লেন, অতী?তেও আমরা দে?খে?ছি, বিএন?পি ক্ষমতায় থাকাকালে সা?বের হোসেন চৌধুরীর বিরুদ্ধে এক?টি মামলা হ?য়ে?ছিল। বিষয়টা ছিল খুবই অদ্ভুত। এছাড়া ২০০১ সা?লের পর বিএন?পি তা?দের অবস্থান ধ?রে রে?খে আওয়ামী লী?গের ওপর এক?দি?কে মামলা-হামলার যে ঘটনাগু?লো ঘ?টে?ছিল, সেই অ?তীতগু?লোই কিন্তু বর্তমান?কে টে?নে এনে?ছে। অতীত সরকার এরকম কোনো ভুল ক?রে থাকলে পরের সরকারও কিন্তু একই রকম ভুল ক?রে। জ্যেষ্ঠ এই সাংবাদিক বলেন, বাস্তবতার জায়গাটুকু?তে সরকার হয়?তে মনে কর?ছে সাম?নে যে নির্বাচনটা হ?চ্ছে, সে নির্বাচ?নে ক্ষমতায় আস?তে হ?লে বিপ?ক্ষের শ?ক্তি?কে চা?পের মু?খে রাখ?তে হ?বে। বিপক্ষ শ?ক্তি?কে চা?পের মু?খে রাখ?তে হ?লে প্রথমে আমরা দে?খে?ছিলাম সভা-সমাবেশ করার বিষয়?টি। সরকার এতদিন সভা-সমাবেশের অনুম?তি দেয়?নি, তা কিন্তু ধী?রে ধী?রে দি?তে শুরু করে?ছে। য?দিও নয়াপল্ট?নের কার্যাল?য়ের সাম?নে থেকে বি?চ্ছিন্ন গ্রেফতা?রের ঘটনা ঘ?টে?ছে, ত?বে অনেক? দিন পর বিএন?পি কিন্তু গত ক?য়েক দি?নে ভা?লো কিছু সমা?বেশ দেখা?তে সক্ষম হ?য়ে?ছে। বাংলাদেশ প্রতিদিনের সম্পাদক ব?লেন, পাল্টা ব্যবস্থা হি?সে?বে সরকা?রের পক্ষ থে?কে হয়?তো যেটা বলা হ?চ্ছে, ঢাকার আইনশৃঙ্খলা স্থি?তিশীল রাখার জন্য এবং বর্তমা?নের রাজনী?তির ধারা ধ?রে রাখার জন্য। যেখা?নে স?ন্দেহ ম?নে হ?চ্ছে সেখানেই  মামলা হ?চ্ছে। ডি?জিটাল নিরাপত্তা আইন নি?য়ে সাংবা?দিকসহ স?চেতন মহল যে প্রস্তাব দি?য়ে?ছিল সেটা সরকারের পক্ষ থে?কে আম?লে না নেয়ার বিষয়?টি?কে দুঃখজনক ব?লে মন্তব্য ক?রেন প্রবীণ এই সাংবাদিক। বলেন, আইন প্র?য়ো?গের একটা বড় বিষয় রয়েছে। ২০০৬ সা?লে বিএন?পি এক?টি প্রযু?ক্তি আইন ক?রে দি?য়ে গি?য়ে?ছিল। পরবর্তী সম?য়ে যে সরকার ক্ষমতায় এলো তার এর ধারাবা?হিকতা ধ?রে রাখ?ল। বর্তমান আইন নিয়ে সাংবা?দিকদের সঙ্গে বৈঠ?কে মন্ত্রীরা যে ক?মিট?মেন্ট করেছিলেন তা তারা রাখেননি। আমা?দের সেই বিশ্বাসটুকু ছি?ল যে তারা  কথাগু?লো রক্ষা কর?বেন। ৩২, ২৮ কিংবা ২৪ ধারায় যে আপত্তি ছিল সেগুলো কিন্তু এখ?নো আ?ছে। এখা?নে কিছু শব্দগত প?রিবর্ত?নের চেষ্টা ক?রে?ছে। নঈম বলেন, রংপুর ও রামুতে যে গুজবগু?লো ছড়ি?য়ে?ছে, সেগু?লো ছ?ড়ি?য়ে?ছে ফেসবুক, টুইটা?রের ম?তো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্য?মে। সরকা?রের উ?চিত ছিল সেগু?লো?কে নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করা। সতর্কতার জন্য যতটুকু করা দরকার ততটুকুই করা উচিত ছিল। আমার কা?ছে আইনগু?লো ভা?লো, কিন্তু আমরা সংবাদমাধ্যম? তো জনগ?ণের কা?ছে অঙ্গীকারাবদ্ধ, সরকা?রের কা?ছে অঙ্গীকারাবদ্ধ। এখা?নে আমা?দের কী হ?বে। অপপ্রয়োগটা ক?তে ভয়ঙ্কর হ?বে! উদাহরণ দিয়ে তিনি বলেন, ধ?রেন ইয়াব বা মাদক ব্যবসা?য়ী?দের বিরেু?দ্ধে সরকার যে জিহাদ ঘোষণা করল, আ?মি সেই দু?ষ্টু লো?কের বিরু?দ্ধে লি?খে দিলাম। এখন সে য?দি এই ধারাগু?লো?তে আমার বিরু?দ্ধে মামলা ক?রে দেয়, সেখা?নে আমার ১৪ বছ?রের জেল হওয়ার সুযোগ আ?ছে। সে জায়গায় তাহ?লে কি আমরা কোনো কিছু লিখ?তে পারব না? আইন?টি পাস হ?ওয়ার আ?গে বিষয়?টি নি?য়ে সরকার ভে?বে দেখবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি। আইনটি এখনো সংশোধনের সুযোগ আছে বলে মনে করেন তিনি।


bdnewseveryday.com © 2017 - 2018