BdNewsEveryDay.com
Friday, November 16, 2018

খালেদার মেডিকেল বোর্ডে ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের চায় বিএনপি

Friday, September 14, 2018 - 838 hours ago

মেডিকেল বোর্ড গঠনের পরদিন শুক্রবার সন্ধ্যায় জরুরি সংবাদ সম্মেলনে দলের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এই দাবি জানান।

তিনি বলেন, “বিএসএমএমইউর গঠিত মেডিকেল বোর্ডে দেশনেত্রীর ব্যক্তিগত বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের রাখা হয়নি, যা বিদ্বেষপ্রসূত মনোভাবেরই বহিঃপ্রকাশ বলে আমরা মনে করি। কারাকর্তৃপক্ষের মৌখিক বার্তা অনুযায়ী, মেডিকেল বোর্ডে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য দেশনেত্রীর ব্যক্তিগত ৫ জন চিকিৎসকের নাম দলের পক্ষ থেকে প্রেরণ করা হয়েছিলো।

“কর্তৃপক্ষ বিষয়টি আমলে না নেওয়ায় এটাই প্রমাণ হয় যে, সরকার বেগম খালেদা জিয়াকে সুচিকিৎসা না দিয়ে তিলে তিলে নিঃশেষ করতে চায়। এটি সরকারের অশুভ পরিকল্পনার ইঙ্গিতবাহী। আমি আবারো দলের পক্ষ থেকে দৃঢ় কন্ঠে বলতে চাই, দেশনেত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের মেডিকেল বোর্ডে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে।”

গত ৯ সেপ্টেম্বর দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নেতৃত্বে ৭ সদস্যের জাতীয় স্থায়ী কমিটি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের সাথে সাক্ষাতের সময়ও তিনি মেডিকেল বোর্ডে খালেদার ব্যক্তিগত চিকিৎসক অন্তর্ভুক্ত করার আশ্বাস দিয়েছেন বলে দাবি করেন রিজভী।

খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় বৃহস্পতিবার পাঁচ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করেছে সরকার। বোর্ডের সদস্যরা হলেন- বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) ইন্টারনাল মেডিসিনের অধ্যাপক আব্দুল জলিল চৌধুরী, কার্ডিওলজির অধ্যাপক হারিসুল হক, অর্থোপেডিক সার্জারির অধ্যাপক আবু জাফর চৌধুরী, চক্ষুর সহযোগী অধ্যাপক তারেক রেজা আলী ও ফিজিক্যাল মেডিসিনের সহযোগী অধ্যাপক বদরুন্নেসা আহমেদ।

মেডিকেল বোর্ডের সদস্যরা শনিবার বিকাল ৪টায় খালেদা জিয়াকে দেখতে কারাগারে যাবেন বলে ঢাকা জেলার সিভিল সার্জন মাহমুদুল হাসান জানিয়েছেন।

গত ৯ সেপ্টেম্বর বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের সঙ্গে দেখা করে খালেদা জিয়ার পছন্দ অনুযায়ী রাজধানীর কোনো বিশেষায়িত হাসপাতালে চিকিৎসা করানোর অনুরোধ জানায়।

মেডিকেল বোর্ডের চিকিৎসক বাছাইয়ের ক্ষেত্রে পেশাগত দক্ষতার চেয়ে সরকার দলীয় আনুগত্যকে প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব।

এর পক্ষে প্রমাণসহ তুলে ধরে রিজভী বলেন, বোর্ডের অন্যতম সদস্য ডা. আবু জাফর চৌধুরী নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি প্রার্থী; দলীয় প্রার্থী হিসেবে সংশ্লিষ্ট এলাকায় ব্যাপক নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছেন। অপর সদস্য ডা. হারিসুল হক আওয়ামী লীগের সমর্থিত চিকিৎসক সংগঠন স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের বিএসএমএমইউ শাখার ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক। এছাড়া অধ্যাপক তারেক রেজা আলী আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য।

“আমরা মনে করি, আওয়ামী লীগের প্রতি অনুগত চিকিৎসকগণের অন্তর্ভুক্তকৃত মেডিকেল বোর্ডের মাধ্যমে যথাযথ চিকিৎসা ও তার শারীরিক পর্যবেক্ষণ সঠিকভাবে প্রতিফলিত হবে না।”

নয়া পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে ভাইস চেয়ারম্যান এজেডএম জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য ফরহাদ হালিম ডোনার ও নির্বাহী কমিটির সদস্য অপর্ণা রায় এসময় উপস্থিত ছিলেন।


bdnewseveryday.com © 2017 - 2018